৭ অক্টোবর ঘটে যাওয়া নানান ঘটনা

স্বাস্থ্য

[ad_1]

প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। আর সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়- যা কিছু ভালো, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানব সভ্যতার আশীর্বাদ-অভিশাপ।

ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সব সময় গুরুত্ব বহন করে। এ গুরুত্বের কথা মাথায় রেখেই বাংলাদেশ জার্নালের পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘আজকের এই দিনের ইতিহাস’।

আজ ৭ অক্টোবর ২০২০, বুধবার। একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

১৮২৬ – প্রথম মধ্যাকর্ষণ শক্তি সম্পন্ন আমেরিকান রেল পথ চালু হয়।


১৮৭১ – শিকাগোতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ২৫০ জন অগ্নিদগ্ধ হয়ে নিহত হয় এবং ৯৫ হাজার লোক গৃহহীন হয়।


১৯০৬ – রেজাশাহ কর্তৃক পারস্যের জাতীয় সংসদ উদ্বোধন হয়।


১৯৩২ – রয়্যাল ইন্ডিয়ান এয়ার ফোর্স প্রতিষ্ঠিত হয়।


১৯৫০ – কলকাতায় মাদার তেরেসার মিশনারিজ অব চ্যারিটি প্রতিষ্ঠিত হয়।


১৯৫৪ – হোচিমিনের নেতৃত্বে কমিউনিস্টদের হ্যানয় দখল করা হয়।


১৯৫৮ – প্রেসিডেন্ট ইস্কান্দার মির্জা কর্তৃক পাকিস্থানে সামরিক শাসন জারি করা হয়।


১৯৭৬ – বাংলাদেশ ৭৭ জারি গ্রুপের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়।


১৯৮১ – হোসনি মোবারক মিশরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন।


১৯৮৯ – হাঙ্গেরীতে কমিউন্সিপার্টির বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়।


১৯৮৯ – পূর্ব জার্মানিতে গনতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা হয় ।

১৯৯৫ – ইন্দোনেশিয়া সুমাত্রায় ভূমিকম্পে শতাধিক নিহত হয়।

জন্ম:


১৭৪৮ – দ্বাদশ চার্লস, তিনি ছিলেন সুইডেনের রাজা।


১৭৭৬ – গিলবার্তো সিলভা, তিনি ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার।


১৮৭৯ – জো হিল, তিনি ছিলেন নোবেল আমেরিকান কবি ও সমাজ কর্মী।


১৮৮৫ – নিল্‌স হেনরিক ডেভিড বোর, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ডেনিশ পদার্থবিজ্ঞানী ও দার্শনিক।


১৮৮৮ – হেনরি এ. ওয়ালেস, তিনি ছিলেন আমেরিকান রাজনীতিবিদ ও ৩৩ তম উপ-রাষ্ট্রপতি।


১৮৯৯ – গোলাম ফারুক খান, তিনি ছিলেন পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর।


১৯০০ – হাইনরিখ লুইটপোল্ট হিমলার, তিনি ছিলেন জার্মান সেনাপতি ও রাজনীতিবিদ।


১৯১৭ – জুন আলয়সন, তিনি ছিলেন আমেরিকান অভিনেত্রী এবং গায়িকা।


১৯২০ – জ্যাক রাউলি, তিনি ছিলেন ইংরেজ ফুটবল খেলোয়াড় ও ম্যানেজার।


১৯২৭ – আর. ডি. লাইং, তিনি ছিলেন স্কটিশ সাইকোলজিস্ট ও লেখক।


১৯৩১ – ডেসমন্ড পিলো টুটু, তিনি নোবেল পুরস্কার বিজয়ী দক্ষিণ আফ্রিকার ধর্মযাজক ও অধিকার আন্দোলন কর্মী।


১৯৩৪ – উলরিকে মেইনহোফ, তিনি ছিলেন জার্মান সাংবাদিক ও একটিভিস্ট।


১৯৩৯ – হ্যারল্ড ওয়াল্টার ক্রোটো, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইংরেজ রসায়নবিদ ও অধ্যাপক।


১৯৪৪ – ডোনাল্ড টসাং, তিনি চীনা রাজনীতিবিদ ও হংকং এর ২য় প্রধান নির্বাহী।


১৯৫০ – জাকায়া কিক্বেটে, তিনি তাঞ্জানিয়া কর্নেল, অর্থনীতিবিদ, রাজনীতিবিদ ও ৪র্থ প্রেসিডেন্ট।


১৯৫২ – ভ্লাদিমির পুতিন, তিনি রুশ প্রজাতন্ত্রের অন্যতম রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব।


১৯৫২ – গ্রাহাম নিল ইয়ালপ, তিনি অস্ট্রেলীয় সাবেক ক্রিকেটার।


১৯৫৫ – ইয়ো-ইয়ো মা, তিনি ফরাসি বংশোদ্ভূত আমেরিকান একপ্রকার বাদ্যযন্ত্রকারী ও শিক্ষাবিদ।


১৯৬৭ – টনি ব্রাক্সটন, তিনি আমেরিকান গায়িকা, গীতিকার, প্রযোজক ও অভিনেত্রী।


১৯৬৮ – থম ইয়রকে, তিনি ইংরেজ গায়ক, গীতিকার ও গিটারিস্ট।


১৯৭৩ – দিদা, তিনি ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার।


১৯৭৬ – গিলবার্তো সিলভা, তিনি ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার।


১৯৭৮ – জহির খান, তিনি ভারতীয় ক্রিকেটার।


১৯৮২ – জেরমাইন ডিফো, তিনি ইংরেজ ফুটবলার।


১৯৮৩ – ডোয়েন জেমস জন ব্র্যাভো, তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটার ও গায়ক।


১৯৮৪ – সালমান বাট, তিনি পাকিস্তানি ক্রিকেটার।


১৯৮৮ – দিয়াগো দা সিলভা কস্তা, তিনি ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার।

১৯৯০ – সেবাস্টিয়ান কোটস, তিনি উরুগুয়ের ফুটবল।

মৃত্যু:


০৭৭৫ – আবু জাফর মনসুর, তিনি ছিলেন বাগদাদের দ্বিতীয় খলিফা।


০৯২৯ – চার্লস দি সিম্পল, তিনি ছিলেন ফরাসি রাজা।


১৭০৮ – গুরু গোবিন্দ সিংহ, তিনি ছিলেন শিখধর্মের দশম গুরু।


১৭৯৬ – টমাস রিড, তিনি ছিলেন স্কটিশ গণিতবিদ ও দার্শনিক।


১৮৪৯ – এডগার অ্যালান পো, তিনি ছিলেন মার্কিন সাহিত্যিক।


১৯০৩ – রুডলফ লিপ্পসচিটয, তিনি ছিলেন জার্মান গণিতবিদ ও অধ্যাপক।


১৯১৯ – আলফ্রেড ডেকিন, তিনি ছিলেন অস্ট্রেলিয়ান আইনজীবী, রাজনীতিবিদ ও ২য় প্রধানমন্ত্রী।


১৯২১ – গ্যাঞ্জো, তিনি ছিলেন পর্তুগালের প্রধানমন্ত্রী।


১৯৫৯ – মারিও লানজা, তিনি ছিলেন আমেরিকান অভিনেতা।


১৯৬৭ – লর্ড এন্টর্নি, তিনি ছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।


১৯৬৭ – নরম্যান এঞ্জেল, তিনি ছিলেন নোবেল পুরুস্কার বিজয়ী ইংলিশ সাহিত্যিক ও সাংবাদিক।


১৯৯২ – উইলি ব্রান্ট, তিনি ছিলেন জার্মান রাস্ট্রনায়ক।


১৯৯৪ – নিল্স কাজ জেরনে, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ডেনিশ বংশোদ্ভূত ইংরেজ চিকিৎসক ও ইম্মুনলোগিস্ট।


২০০৬ – আন্না পলিটকোভস্কায়া, তিনি ছিলেন আমেরিকান বংশোদ্ভূত রাশিয়ান সাংবাদিক ও একটিভিস্ট।


২০১১ – রমিজ আলীয়া, তিনি ছিলেন আলবেনীয় রাজনীতিবিদ ও আলবেনিয়ার রাষ্ট্রপতি।


২০১৩ – প্যাট্রিস চেরেয়াউ, তিনি ছিলেন ফরাসি অভিনেতা, পরিচালক, প্রযোজক ও চিত্রনাট্যকার।

২০১৪ – সিগফ্রায়েড লেনজ, তিনি ছিলেন পোলিশ বংশোদ্ভূত জার্মান লেখক ও নাট্যকার।

দিবস:

আজ বিশ্ব শিশু দিবস

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম



[ad_2]

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *