ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ কানে

স্বাস্থ্য


ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের প্রতিবাদ আবার উঠে এলো ফ্রান্সের কান চলচ্চিত্র উৎসবে। এর আগে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এ উৎসবে ভার্চুয়াল বক্তৃতা দিয়েছিলেন।

শুক্রবার বাইরের লাল কার্পেটে দাঁড়িয়ে নিজের পোশাক ছিঁড়ে ফেললেন এক তরুণী। দেখা গেল, তার গায়ে আঁকা ইউক্রেনের পতাকা। তার উপরে ইংরেজিতে লেখা, ‘আমাদের ধর্ষণ করা বন্ধ করো!’ এ ছাড়া তার শরীর জুড়ে রক্তের মতো করে লাল রঙের ছোপ।

নিরাপত্তারক্ষীরা দ্রুত তাকে সরিয়ে নিয়ে যান। জেলেনস্কি আগেই বলেছেন, রুশ সেনাদের হাতে ইউক্রেনের কয়েকশো নারীর ধর্ষিতা হওয়ার খবর পেয়েছেন তদন্তকারীরা।

যুদ্ধের গতি কিছুটা কমতেই ইউক্রেন-পুনর্গঠন নিয়ে আলোচনা শুরু করে দিয়েছে বিশ্বের ধনীতম দেশগুলোর জোট জি-৭। বিশেষ করে যুদ্ধকালে যে বিলের বোঝা জমতে শুরু করেছে ইউক্রেনের কাঁধে, তা মেটাতে ১ হাজার ৮৪০ কোটি ডলার অর্থসাহায্য ঘোষণা করেছে জি-৭।

ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রী ডেনিস শ্মিহাল বলেন, এ তহবিল দেশকে জয়ের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। তবে একই সঙ্গে জেলেনস্কি বলেন, ‘দোনবাসের শিল্পাঞ্চল সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়েছে রুশরা। নির্বিচারে বোমা ফেলেছে ওরা। এতটুকু বাড়িয়ে বলছি না, দোনবাস এখন নরক।’

দোনবাসের সেভেরোডোনেৎস্ক অঞ্চলে রুশ বোমায় ১২ জন প্রাণ হারিয়েছেন। কাল গভীর রাতের দিকে একটি ভিডিও সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘ওডেসা অঞ্চলে এখনও টানা হামলা চালিয়ে যাচ্ছে রাশিয়া। সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে দোনবাস। ইচ্ছাকৃতভাবে রাশিয়া এ কাজ করেছে। ওদের উদ্দেশ্যই ছিল যত বেশি সংখ্যক ইউক্রেনীয়কে খুন করা।’

এ প্রেক্ষাপটে জার্মানিতে জি-৭-এর বৈঠকে মার্কিন অর্থসচিব জ্যানেট ইয়েলেন বলেন, ‘ইউক্রেনের পেছনে আমরা আছি। এ পরিস্থিতির সঙ্গে যুঝতে আমরা সকলে মিলে ওদের টেনে তুলব।’ সূত্র: আনন্দবাজার অনলাইন।

বাংলাদেশ জার্নাল/টিটি



Leave a Reply

Your email address will not be published.